https://www.a1news24.com
১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১১:০৩

শেষ হলো ১ম ওয়ার্ল্ড রোবটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপ- টেকনোজিয়ান এর ২০২৪ এর জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪: ওয়ার্ল্ড রোবটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপ বা টেকনোজিয়ান এর বাংলাদেশ পর্বের আঞ্চলিক প্রতিযোগিতা শেষ হলো। গত ৮ এবং ৯-ই মার্চ, ২০২৪ এ আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি-বাংলাদেশ (এআইইউবি)এর ক্যাম্পাসে জাতীয় পর্যায়ের এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। টেকনোজিয়ান এর জাতীয় পর্যায়ের এ প্রতিযোগিতার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ (এআইইউবি)-র উপ-উপচার্য অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইইই বিভাগের অধ্যাপক ড. শহীদুল ইসলাম খান, ব্রেইনস্টেশনের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাইসুল কবির এবং কম্পিউটার সার্ভিসেস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মমলুক ছাবির আহমদ। এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যপ্রযুক্তি ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. বি এম মইনুল হোসেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যপ্রযুক্তি ইন্সটিটিউট এর অধ্যাপক ড. এম মেসবাহউদ্দীন সরকার এবং ১ম টেকনোজিয়ান বাংলাদেশের সিলভার স্পন্সর ‘ফনা ইনফোটেক’ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল ইসলাম। সমাপনী আয়োজনে শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দিয়ে শহীদুল ইসলাম খান বলেন, ‘শুধু শহরের শিক্ষার্থীরা রোবট বানাতে পারলেই হবে না, গ্রামাঞ্চল পর্যন্ত এ কার্যক্রম ছড়িয়ে দিতে হবে।’ এ সময় রাইসুল কবির বলেন, ‘রোবট বানানোর কাজ শিখে বিদেশে পাড়ি জমালে কিন্তু দেশের কোনো উপকার হবে না। দেশেও এখন অনেক সুযোগ আছে। সেগুলো সবার কাজে লাগাতে হবে।’

দুইদিনের এ প্রতিযোগিতায় মোট ৭টি ক্যাটাগরিতে ৬টি বিভাগের ৬০ এর অধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১১০ ক্লাবের প্রায় ১ হাজার ৫০ শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এর মধ্যে ৪০০ এর অধিক নারী প্রতিযোগী। ক্যাটাগরিগুলো হলো রোবো সকার, রোবো রেস, ফাস্টেস্ট লাইন ফলোয়ার, ইনোভেশান কন্টেস্ট, বটস কমব্যাট, বিজনেস কেস কম্পিটিশান এবং এড মেকিং চ্যালেঞ্জ। পুরো প্রতিযোগিতায় সব মিলিয়ে ১০ জন এক্সটার্নাল বিচারক ছিলেন যারা বিজয়ীদের নির্বাচিত করেন। অন্য ২টি সেগমেন্ট ‘ড্রোন চ্যালেঞ্জ’ এবং ‘ওয়াটার রকেট চ্যালেঞ্জ’ এ বিভাগীয় বিচারকদের মাধ্যমে বাছাইকরন করা হয়।

জাতীয় পর্বে ৭ ক্যাটাগরিতে মোট ১৪ জনকে পুরস্কার দেওয়া হয়। পুরস্কার হিসেবে দেওয়া হয় মেডেল, সার্টিফিকেট ও নগদ টাকার চেক। সর্বমোট প্রায় ৪ লক্ষ টাকার প্রাইজমানি দেয়া হয়। এ অলিম্পিয়াডে সেরা ক্লাব নির্বাচিত হয়েছে পিএইউ রোবটিকস ক্লাব (PAU Robotics Club)। রোবো রেস সেগমেন্টে চ্যাম্পিয়ন ‘পিএইউ রোবোটিক্স ক্লাব’ এর সদস্যগন হলেন-মোঃ মোবাশ্বিরুল ইসলাম,মোঃ আসিফুর রহমান,শাহাদাত,মৌসুমী,ইসরাত জাহান মিম ও নুসরাত জাহান মিম। রোবো রেস সেগমেন্টে রানার্স আপ ‘ক্ষ্যাপা চাকা’ ক্লাবের সদস্যগণ হলেন-মোঃ রাকিব হোসাইন,মোঃ ফারদিন হোসাইন নিলয়,আবরার রেজোয়ান প্রিন্স,তাজউদ্দিন আহমেদ রাফি,শাহরিয়ার হাসান জেতুল ও আতিকুর রহমান সজিব। বট কমবেট সেগমেন্টে চ্যাম্পিয়ন ‘টিম কাকতাড়ুয়া’ ক্লাবের সদস্যরা হলেন- মৃদুল হাসান,বায়েজিদ,মোঃ আশিকুর রহমান,আবু আনাস নাসিম,মোঃ নাহিদ হোসাইন,সায়েদ,নাদিম,মওদুদ আহমেদ,মোঃ রিজওয়ান ও তাবাসসুম বাঁধন। বট কমবেট সেগমেন্টে রানার্স আপ ‘এআরসি প্রিসেপশন’ ক্লাবের প্রতিযোগিরা হলেন-খালিদুজ্জামান মৃদুল,মোঃ মমিনুল ইসলাম হিমেল ও জগন্নাথ ভৌমিক। ফাস্টেস্ট লাইন ফলোয়ার সেগমেন্টে চ্যাম্পিয়ন ‘পিএইউ রোবোটিক্স ক্লাব’ এর সদস্যরা হলেন-সাইফুল ইসলাম তুহিন,নাজিম মোল্লা ও তানভীর আহমেদ। ফাস্টেস্ট লাইন ফলোয়ার সেগমেন্টে রানার্স আপ ‘টিম ভয়েড সাস্ট’ ক্লাবের সদস্যরা হলেন-অভ্র বিশ্বাস,সৌভিক সরকার,মোঃ ইমরুল কায়েস,মোঃ মোবারক হোসেন,ও মোঃ জামিলুর রহমান মিরন। রোবো সকার সেগমেন্টে চ্যাম্পিয়ন ক্লাব ‘এএফকে ইন্টারসেপ্টর’ এর প্রতিযোগিরা হলেন-শেখ সাইফ সিমরান, সিয়াম তাহসিন ভূঁইয়া,শুভ্র সৌরভ সরকার,ইয়ামিন জান্নাত,সামিউল হক,মোঃ রাহাত আল-মামুন,মোঃ রায়হান হোসাইন,ফাতিন ইশরাক তাবিব ও সুমাইয়া রশিদ। রোবো সকার সেগমেন্টে রানার্স আপ ‘টিম কাকতাড়ুয়া’ ক্লাবের প্রতিযোগিগণ হলেন-মৃদুল হাসান,বায়েজিদ,মোঃ আশিকুর রহমান,আবু আনাস নাসিম,মোঃ সবুজ আলী,মোঃ নাহিদ হোসাইন,সায়েদ,নাদিম ও তাবাসসুম বাঁধন। ইনোভেশন সেগমেন্টে চ্যাম্পিয়ন টিম ‘অরোরা’ ক্লাবের প্রতিযোগিগণ হলেন-রামিন মেহরান,মাহফুজা ইয়াসমিন, স্নেহাশিস সাহা,শাহরিয়ার মাসুদ,এমওবি জিহাদ,তনয় বনিক,পলক পোদ্দার,রাতুল হাসান,শাহিনুজ্জামান সানিম ও সাদিয়া মোবাশ্বিরা। ইনোভেশন সেগমেন্টে রানার্স আপ ‘হরিমোহন সাইন্স ক্লাব’ এর সদস্যরা হলেন-মোঃ আবদুস সিয়াম ও মোঃ তওশিন ইলাহি। ইনোভেশন সেগমেন্টে মোস্ট প্রমিনেন্ট প্রজেক্ট হিসেবে নির্বাচিত ‘স্পার্ক রোবোটিক্স’ ক্লাবের প্রতিযোগিগণ হলেন-মোহাইমেন সরকার,অতনু কুমার দে,ফাল্গুন সেন অপু,কিশালয় দে দ্বীপ ও ফাহিম ফয়সাল। বিজনেস কেস কম্পিটিশন সেগমেন্টে চ্যাম্পিয়ন ‘হাইওয়ে টু হেভেন’ ক্লাবের প্রতিযোগিগণ হলেন-মোহাইমেনুল সোলাইমান নিকোলাস,নোমান কিবরিয়া রিয়ান ও শিহাব মাহমুদ অমিয়ো।

বিজনেস কেস কম্পিটিশন সেগমেন্টে রানার্স আপ ‘এনিগমা’ ক্লাবের প্রতিযোগিরা হলেন-মঞ্জুরুল হোসাইন,ফাইয়াজ বিন শফিক,সুশ্ময় সাহা,সামিন মোহতাদি ও নাফিস আলম আদিয়াত। এড মেকিং চ্যালেঞ্জ সেগমেন্টে চ্যাম্পিয়ন ‘রোবোরিলস’ ক্লাবের প্রতিযোগিগণ হলেন-ফারদিনা রাব্বি,আব্দুল্লাহ বিন মাহমুদ,আসাফ মাহমুদ,আমর ইউসুফ,আহনাফ আলী,অন্যন্যা আফরোজ নদী,মুনতাসির হক ফয়েজ,আহনাফ হোসাইন,শ্রাবন্তী খান শশী ও ফারিহা আহির। এড মেকিং চ্যালেঞ্জ সেগমেন্টে রানার্স আপ ‘হুদাই কষ্ট সময় নষ্ট’ ক্লাবের সদস্যরা হলেন-মামুনুর হামিদ,নাহিদ পারভেজ মাফি,ইসমাঈল আরিয়ান,ওসমান ওয়াফি ও আফিফ লস্কর।

এড মেকিং এবং বিজনেস কেস কম্পিটিশান বাদে বাকি সেগমেন্টের জাতীয় পর্বের বিজয়ীদের নিয়ে পরবর্তীতে জাতীয় ক্যাম্প আয়োজন করা হবে। শিক্ষার্থীদের পারফরম্যান্স বিবেচনা করে ক্যাম্প থেকে নির্বাচিতদের নিয়ে গঠিত হবে বাংলাদেশ দল, যারা ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠিতব্য ৮ম ওয়ার্ল্ড রোবটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপ-এ প্রায় ৫০টি দেশের ২০ হাজারের বেশি প্রতিযোগীর সঙ্গে এক মঞ্চে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করবে। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশ্বখ্যাত আইওটি এবং রোবটিক্স ব্র্যান্ড ‘আরডুইনো’- র বাংলাদেশে ফ্রন্টেক লিমিটেডের মাধ্যমে নতুন ডিস্ট্রিবিউশান শুরুর ঘোষণা দেয়া হয়। এছাড়া ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশান অফ ই-স্পোর্টস এর বাংলাদেশের প্রতিনিধি খুলনা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেকাট্রনিক্স বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মোহাম্মাদ হেলাল-আন নাহিয়ানের সাথে উপস্থিত অতিথি এবং প্রতিযোগীদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়।

সমাপনী অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন টেকনোজিয়ান বাংলাদেশ এর সাধারণ সম্পাদক, ফ্রন্টেক লিমিটেড এর পরিচালক এবং ১ম টেকনোজিয়ান বাংলাদেশ জাতীয় রাউন্ডের সার্বিক সমন্বয়ক রেদওয়ান ফেরদৌস। টেকনোজিয়ান বাংলাদেশ এর সমন্বয়ক হিসেবে ছিলেন আব্দুস শাকুর সিয়াম। এছাড়াও অনুষ্ঠানে আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি-বাংলাদেশ (এআইইউবি) এর এআরসি সহ অন্যান্য ক্লাবের ৬৫জন উৎসাহী এবং নিবেদিত প্রাণ স্বেচ্ছাসেবক উপস্থিত ছিলেন । সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন ফ্রন্টেক লিমিটেড এর কর্মকর্তাবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শেষে মনোজ্ঞ একুস্টিক সংগীত পরিবেশনা করেন ‘এআইইউবি পারফর্মিং আর্টস ক্লাব’ (এপাক)।

এর আগে ৮ই মার্চ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি-বাংলাদেশ (এআইইউবি) এর ইঞ্জিনিয়ারিং ফ্যাকাল্টির এসোসিয়েট ডিন অধাপক ড. মোহাম্মাদ আবদুল মান্নান, টেকনোজিয়ান বাংলাদেশের সভাপতি এবং বিডিওএসএন এর সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান, বাংলাদেশ ইনোভেশান ফোরামের ফাউণ্ডার আরিফুল হাসান অপু, আইসিটি অলিম্পিয়াডের ফাউন্ডার মোহাম্মাদ শাহরিয়ার খান উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, এ অলিম্পিয়াডের জাতীয় পর্ব যৌথভাবে আয়োজন করেছে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক ও ফ্রন্টেক লিমিটেড। সহ আয়োজক হিসেবে ছিলেন আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি-বাংলাদেশ (এআইইউবি) এবং অল ইন্ডিয়া কাউন্সিল ফর রোবোটিক্স এন্ড অটোমেশান (আইক্রা)। সহযোগী হিসেবে ব্রেইনস্টেশান২৩, আমারপে, ফনা ইনফোটেক, কম্পিউটার সার্ভিসেস লিমিটেড এবং জেআরসি বোর্ড। এ আয়োজনের অ্যাসোসিয়েট সহযোগী প্রথম আলো। ম্যাগাজিন পার্টনার বিজ্ঞানচিন্তা ও কিশোর আলো। স্ট্রাটেজিক পার্টনার- জাদুপিসি। টিভি সহযোগী দীপ্ত টিভি এবং রেডিও সহযোগী ঢাকা এফএম ৯০.৪। ইনোভেশন সহযোগী বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম। এডটেক সহযোগী হিসেবে ফারহানা’স ব্রেইনস্টেশান এবং ডিজিটাল মিডিয়া মার্কেটিং পার্টনার হিসেবে রয়েছে রেড মাউস। বেভারেজ পার্টনার ট্রান্সকম বেভারেজ লিমিটেড।

আরো..