https://www.a1news24.com
৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৪:২৩

লেবাননে তিন হিজবুল্লাহ কমান্ডারকে হত্যার দাবি ইসরায়েলের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: লেবাননে হামলা চালিয়ে সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ-এর তিন কমান্ডারকে হত্যার দাবি করেছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) ইসরায়েলের উত্তরাঞ্চলে গোষ্ঠীটির সঙ্গে দেশটির সেনাবাহিনীর গোলা বিনিময় হয়। হিজবুল্লাহ’র ড্রোন হামলার জবাবে বিমান হামলা চালিয়ে তাদের হত্যা করেছে ইসরায়েলি সেনারা। খবর টাইমস অব ইসরায়েলের।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ও সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, হিজবুল্লাহর ড্রোন হামলায় তিন ব্যক্তি সামান্য আহত হয়েছেন। ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বলেছে, উত্তরাঞ্চলীয় বেইত হিলেল এলাকায় বিস্ফোরকবাহী দুটি ড্রোন আঘাত হেনেছে।

হিজবুল্লাহ দাবি করেছে, তারা ওই এলাকায় আয়রন ডোম ব্যাটারিকে নিশানা করেছিল। এর আগে গোষ্ঠীটি এমন দাবি করেছিল। তবে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী তাদের দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে। ইসরায়েলি বাহিনী বলেছে, হামলার সময় কেন সাইরেন বাজেনি তা তদন্ত করা হচ্ছে।

ড্রোন হামলার পর লেবাননের সংবাদমাধ্যম উল্লেখ করেছে, ইসরায়েল সীমান্ত থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরে আইন বাল শহরে একটি গাড়িতে ইসরায়েলি বিমান হামলায় এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী পরে নিশ্চিত করেছে বিমান হামলার কথা। তারা বলেছে, হিজবুল্লাহ’র উপকূলীয় এলাকার এক কমান্ডারকে লক্ষ্য করে এই হামলা চালানো হয়েছে এবং তাকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত কমান্ডারের নাম ইসমাইল ইউসেফ বাজ। তিনি একজন ব্রিগেডিয়ার কমান্ডারের পদমর্যাদার এবং হিজবুল্লাহর সামরিক শাখার সিনিয়র ও প্রবীণ কর্মকর্তা।

এর কয়েক ঘন্টা পরে, লেবাননের গণমাধ্যমে চেহাবিয়েহ শহরে একটি গাড়িতে আরেকটি ড্রোন হামলা চালিয়ে হিজবুল্লাহর দুই সদস্যকে হত্যা করার খবর জানানো হয়।

আইডিএফের দাবি, তাদের একজনের নাম মুহম্মদ শাহৌরি। ওই হামলায় হিজবুল্লাহ কমান্ডার মাহমুদ ফাদলাল্লাহও নিহত হন। তারা রাদওয়ানের পশ্চিম জেলা রকেট ইউনিটের কমান্ডার ছিলেন।

আরো..