https://www.a1news24.com
২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৯:৪২

বাজেট প্রত্যাখ্যান করে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি বিক্ষোভ

২০২৪-২০২৫ অর্থবছরের বাজেট প্রত্যাখ্যান করে বৃহস্পতিবার (৬জুন) রাতে নগরীতে বিক্ষোভ করেছে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি। তাৎক্ষণিক মিছিলটি সিলেট কোর্ট পয়েন্ট থেকে শুরু হয়ে জিন্দাবাজার এসে শেষ হয়।

বিক্ষোভ মিছিলে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ইমদাদ আহমেদ চৌধুরী, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমেদ চৌধুরী, মহানগর বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক নজিবুর রহমান নজিব, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেট হাসান আহমেদ পাটোয়ারী রিপন, যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মানিক, যুগ্ম সম্পাদক আবুল কাশেম, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক মাহবুবুল হক চৌধুরী, সদস্য সচিব শাকিল মুর্শেদ, মহানগর যুবদলের সাবেক আহবায়ক সদস্য তোফাজ্জল হোসেন বেলাল, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব আফসর খান, রফিকুল ইসলাম রফিক, অর্জুন ঘোষ, ডা. নাজিম উদ্দীন, সুমেল আহমেদ চৌধুরী, আব্দুল মুনিম, আব্দুর রহিম মল্লিক, রহিম আলী রাসু, আব্দুস সবুর রাসেল, লোকমানুজ্জামান লোকমান, নুরুল হুদা দিপু, আব্দুল জলিল, নজরুল ইসলাম, সারোয়ার রেজা, আব্দুর রউফ, ফরহাদ আহমেদ, ফয়জুর রহমান, শাকিল হাসান, হাফিজুর রহমান টিপু, আয়াত আলী প্রিন্স, আমিনুর রহমান আমিন, আশিকুর রহমান রানা, দেলোয়ার হোসেন, মিনহাজ শামসি, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম টিপু, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক আব্দুস সামাদ লস্কর মুনিম, মহানগর ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক রুবেল ইসলাম, জেলার সহ-দপ্তর সম্পাদক জয়নাল আবেদীন রাহেল, সুবেদ খান, মুফতি আসেফ, ১৮ ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মুনিম, সালেক আহমদ, ফরহাদ আহমদ প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন বলেন, ডামি নির্বাচনের মাধ্যমে গঠিত ডামি সরকারের ডামি বাজেট ইতিমধ্যে বাংলাদেশের জনগণ প্রত্যাখান করেছে। এই সরকার জনসাধারণের ম্যান্ডেট ছাড়াই বছরের পর বছর ধরে ক্ষমতা আঁকড়ে রয়েছে। জাতীয় সংসদের ২০২৪-২৫ অর্থ-বছরের প্রস্তাবিত বাজেট ‘অর্থ লুটের নতুন পরিকল্পনা’ ডামি সরকারের। দেশ এখন লুটেরাদের কবলে। এই বাজেটও হয়েছে লুটেরাদের জন্য। বাজেটে দেশের অর্থ নতুনভাবে লুটপাটের পরিকল্পনা করা হয়েছে। এই বাজেটে দেশের কৃষক, শ্রমিক সহ মেহনতী ও সাধারণ মানুষের জীবন যাত্রার মানের কোন পরিবর্তন আনবে না। তাই আমরা ঘৃণাভরে ঘোষিত বাজেট প্রত্যাখ্যান করেছে বাংলাদেশের মানুষ। জনসমর্থনশূণ্য এই অবৈধ সরকারের কাছে আমাদের কোন প্রত্যাশা নাই। আমাদের প্রত্যাশা জনগনের ভোটে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নির্বাচিত সরকারই জনবান্ধব বাজেট দিতে পারবে। বিজ্ঞপ্তি

আরো..