https://www.a1news24.com
২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৮:২৩

ন্যাশভিলকে হারিয়ে শেষ আটে মায়ামি

স্পোর্টস ডেস্ক: প্রথমবারের মতো কনক্যাকাফ চ্যাম্পিয়নস কাপে খেলছে ইন্টার মায়ামি। এরই মধ্যে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করেছে লিওনেল মেসি ও লুইস সুয়ারেজের দল। তবে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে হোঁচট খায় তারা। ন্যাশভিলের মাঠ থেকে ২-২ গোলের ড্র নিয়ে ফিরেছিল দলটি। ওই ম্যাচে অবশ্য গোল পেয়েছিলেন মেসি-সুয়ারেজ দুজনই।

আজ ফিরতি লেগে ঘরের মাঠে ন্যাশভিলকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে ইন্টার মায়ামি। আজও গোলের দেখা পেয়েছেন মেসি-সুয়ারেজ। তাতে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-৩ গোলে এগিয়ে থেকে শেষ আট নিশ্চিত করেছে দলটি। মায়ামির হয়ে অন্য গোলটি রবার্ট টেলরের।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) বাংলাদেশ সময় ভোরে অনুষ্ঠিত ম্যাচটির অষ্টম মিনিটেই এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। মায়ামির প্রথম গোলটি আসে সুয়ারেজের কাছ থেকে। ন্যাশভিলের ডিফেন্ডারদের বোকা বানিয়ে বক্সের মধ্যে সুয়ারেজকে দারুণ এক পাস দেন মেসি। এরপর সুয়ারেজ গোলের কাজটা সারেন। ম্যাচের ২৩তম মিনিটে দলের দ্বিতীয় গোলটি করেন মেসি। ডি-বক্সের মধ্যে দিয়েগো গোমেজের কাছ থেকে বল পেয়ে বাঁ পায়ের শটে গোল করেন মেসি।

ম্যাচের মাত্র ২৩ মিনিটেই মায়ামি ২-০ গোলে এগিয়ে যায়। মেসির দল বিরতিতে যায় ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে। বিরতি থেকে ফেরার ৫ মিনিট পরই মেসিকে তুলে নেন জেরার্দো মার্তিনো। মেসিকে তখন কেন তুলে নেয়া হয়েছে, সেই বিষয়ে নিশ্চিত কিছু জানা যায়নি। মেসির বদলি হিসেবে মাঠে নেমেছিলেন টেলর। ৬৩ মিনিটে দুর্দান্ত এক হেডে বল জালে জড়িয়ে মায়ামিকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যান তিনিই। ন্যাশভিলের স্যাম সারিডজ গোল করে ব্যবধান কমান ম্যাচের ৯৩ মিনিটে।

প্রথমবারের মতো টুর্নামেন্টটি খেলছে মায়ামি। গত মৌসুমে মেসির কল্যাণেই এই টুর্নামেন্টে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ২০১৮ সালে প্রতিষ্ঠিত ক্লাবটি। মায়ামি লিগস কাপ জেতায় এ মৌসুমে সরাসরি কনক্যাকাফ চ্যাম্পিয়নস কাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলছে। ২৭ দলের এ টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়নরা খেলবে ২০২৫ সালের ক্লাব বিশ্বকাপে।

শেষ ষোলোয় মনটেরি ও সিনসিনাটির মধ্যকার ম্যাচে যে দল জিতবে, তাদের বিপক্ষে শেষ আটে খেলবে মেসির মায়ামি। ম্যাচটি হবে আগামী ২ এপ্রিল। এর আগে ১৬ মার্চ ডিসি ইউনাইটেডের বিপক্ষে খেলবে মায়ামি।

আরো..