https://www.a1news24.com
১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১১:১৫

নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে অভিনব প্রতিবাদে অংশ নিলেন অভিনেত্রীরাও

অনলাইন ডেস্ক: বাঙালি নারীর সাজসজ্জায় টিপ-এর ব্যবহার কারও অজানা নয়। নারীর চিরাচরিত এই টিপই এবার হয়ে উঠেছে নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের ভাষা। ‘আমার প্রতিবাদের ভাষা #OddDotSelfie’ স্লোগানে চলছে এই অভিনব প্রতিবাদে সাড়া দিয়েছেন দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রীরাও।

সম্প্রতি ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রামে সেলফি পোস্ট করে এই প্রতিবাদ শুরু করেন তারা। কপালের মাঝখান থেকে টিপ একটু সরিয়ে সেলফি তুলে #OddDotSelfie লিখে পোস্ট করেন নিজ নিজ ওয়ালে। তারা নারীদের আহ্বান জানান সেলফি ও হ্যাশট্যাগসহ প্রতিবাদে যোগ দিতে। এরপর এটি ছড়িয়ে যেতে থাকে সাধারণ মানুষের মাঝেও।

এ প্রতিবাদে অংশ নিয়েছেন জয়া আহসান। তিনি তার পোস্টে লেখেন, কপালে টিপ দিয়ে আমরা নারীরা নিজেদের শোভন করে তুলি। সোশ্যাল মিডিয়ায় আমাদের টিপ পরা হাসি হাসি মুখের ছবিতে লাইক পড়তে থাকে। কিন্তু ঘরের ভেতরেও কি আমাদের সবার ছবিটা এই রকম?

জয়া আরো লেখেন, দেশে প্রতি তিনজন নারীর একজন সহিংসতার শিকার হচ্ছে। রক্তে মেখে যাচ্ছে তাঁদের শোভন সৌন্দর্য। স্খলিত হয়ে পড়ছে টিপ। মানুষ হিসেবে তাঁদের মর্যাদা খসে পড়ছে। আসুন, আমরা নারী নির্যাতনের প্রতিবাদ করি। কপালের টিপ সরিয়ে পরে সেলফি তুলি,আর #OddDotSelfie লিখে শেয়ার করি সোশ্যাল মিডিয়ায়। মেয়েরা বাঁচুক মানুষের পূর্ণ মর্যাদায়।

এদিকে জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা লেখেন, বাংলাদেশে প্রতি তিনজনে একজন নারী ঘরে বাইরে নানাভাবে নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। কিন্তু সেই অনুপাতে এটা নিয়ে তেমন কোনো প্রতিবাদ হয় না। কারণ, আমাদের সমাজে নারীদের শেখানোই হয় নীরবে সহ্য করতে। কিন্তু আমরা চাই, এই ট্যাবু ভেঙে আওয়াজ তুলুক প্রতিটি নারী। কারণ চুপ না থেকে কথা বললেই কেবল সম্ভব এইসব সহিংসতা বন্ধ করা।

আর তাই, নারী নির্যাতনের প্রতিবাদ হিসেবে ‘Odd Dot Selfie’. যেখানে প্রতিবাদের ভাষা হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে নারীর সাজের চিরায়ত সঙ্গী কপালের ‘টিপ’। কপালের এই টিপ মাঝখানে না পরে আশপাশে সরিয়ে দিয়ে সেলফি তুলে #OddDotSelfie লিখে ছবি শেয়ার করুন সোশ্যাল মিডিয়ায় আর আপনিও যোগ দিন এই প্রতিবাদে।

বি.দ্র. ‘নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে আমার প্রতিবাদের ভাষা #OddDotSelfie’ লেখাটি ক্যাপশন হিসেবে ব্যবহার করুন এবং অন্যদেরকেও এই প্রতিবাদে অংশগ্রহণ করার আহ্বান জানান।

এদিকে এ সম্পর্কে অভিনেত্রী ও সমাজকর্মী সারা যাকের বলেন, আমাদের দেশের নারীরা প্রতিদিন ঘরে বাইরে নানাভাবে নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। কিন্তু সেই অনুপাতে এটা নিয়ে কোনো প্রতিবাদই হচ্ছে না। সবাই মিলে সোচ্চার হওয়ার এখনই সময়। শুধু নিজের জন্য নয়, আশেপাশে কোনো নারীকে নির্যাতিত হতে দেখামাত্র প্রতিবাদ করা উচি’।

পরিবারে নারীর প্রতি সহিংসতা যেমন বাড়ছে তেমনি সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অনলাইনে এই হয়রানির মাত্রা বেড়েছে। কিন্তু কোনো প্রতিবাদ দেখা যাচ্ছে না। যেকোনো নির্যাতনের শিকার হলে নারীরা বেশিরভাগ সময় তা মুখ বুজে সহ্য করে নেন।

কিন্তু নারীর প্রতি সহিংসতা নারীরা মুখ খুললেই বন্ধ হবে। তাই আমি এই প্রতিবাদে যোগ দিয়েছি, জানান প্রতিবাদে অংশগ্রহণকারী নাট্যকর্মী ফৌজিয়া করিম অনু।

আরো..