https://www.a1news24.com
৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৭:৩০

নারী আম্পায়ার ঘিরে বিতর্ক, কিছুই জানেন না পাপন

স্পোর্টস রিপোর্টার: বর্তমানে দেশের ক্রিকেট পাড়ায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু নারী আম্পায়ার সাথিরা জাকির জেসি। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে যা দেশের গণ্ডি পেড়িয়ে ছড়িয়েছে বিদেশেও। এর শুরুটা গেল বৃহস্পতিবার চলমান ডিপিএলের সুপার লিগের দ্বিতীয় পর্বের বিগ ম্যাচ মোহামেডান ও প্রাইম ব্যাংকের মধ্যকার ম্যাচ থেকে শুরু এবং এখনো চলছে। তবে এ বিষয়ে কিছু জানেন না বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। এছাড়া বিসিবি আম্পায়ার্স কমিটির চেয়ারম্যান ইফতেখার রহমান মিঠুর মতে যা ঘটেছে তার থেকে বিষয়টিকে বাড়িয়ে প্রচার করেই এই চলমান আলোচনা সমালোচনার বৃদ্ধি করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সাবেক নারী জাতীয় দলের ক্রিকেটার জেসি। তবে এখন তিনি আইসিসির প্যানেলের স্বীকৃত প্রাপ্ত একজন আম্পায়ার। যা গেল মাসেই পেয়েছেন তিনি। সাধারণত আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনা করতেই দেখা যেত তাকে। তবে বৃহস্পতিবার অন-ফিল্ড আম্পায়ার হিসেবে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে অভিষেক হয় তার। যা কি না দেশের ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম বার। তবে বিষয়টিকে ভালো ভাবে নেয়নি এই ম্যাচের দুটি ক্লাব মোহামেডান ও প্রাইম ব্যাংক। খেলা মাঠে গড়ানোর আগেই দুই দলের পক্ষ থেকে জানানো হয় জেসির দায়িত্ব পালন নিয়ে আপত্তি। এতে করে খেলা মাঠে গড়াতেও হয় খানিকটা বিলম্ব।

সমালোচনার সৃষ্টি সেখান থেকেই। পরবর্তী সময়ে এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর মুহূর্তেই যা ছড়িয়ে পরে গোটা ক্রিকেট পাড়ায়। এ নিয়ে শুরুতে শোনা যায় নারী ফিল্ড আম্পায়ার জেসির অধীনে খেলা নিয়ে প্রাইম ব্যাংক ও মোহামেডানের ক্রিকেটাররা আপত্তি জানায়। যদিও ইতিমধ্যে ঐ ঘটনায় নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন প্রাইম ব্যাংক ও মোহামেডানের কর্মকর্তারা। তাদের দাবি—কেউই নারী আম্পায়ার নিয়ে কোনো আপত্তি তোলেননি। তারা জেসির অভিজ্ঞতা নিয়ে সংশয়ে ছিলেন।

এ বিষয়ে মোহামেডানের পক্ষ থেকে জানানো বলা হয়েছে, ‘আসলে আপত্তি তুলিনি। আমরা এমনিতে বলাবলি করছিলাম যে ম্যাচের মেরিট অনুযায়ী তো এত বড় ম্যাচে জেসি আম্পায়ার হতে পারে না। আমরা বলছিলাম এত বড় ম্যাচে আরো ভালো আম্পায়ার দরকার ছিল। আমরা অফিসিয়ালি অভিযোগ করিনি, অফিসিয়ালি অভিযোগ করব কেন। আমরা ওরকমভাবে রিপোর্ট করিনি। আমাদের ধারণা ছিল তিনি নতুন আম্পায়ার, লিস্ট-এ ক্রিকেটে এ বছরই প্রথম খেলা পরিচালনার দায়িত্ব পেয়েছে। তাই অভিজ্ঞতা কম। আমরা সাধারণত এসব ম্যাচে সিনিয়র আম্পায়ার চাই।’

এছাড়া প্রাইম ব্যাংক পক্ষ থেকে জানানো হয়, ‘নারী আম্পায়ার দেবে এটা তো জানি না আমরা। বাংলাদেশে নারী আম্পায়ারের অভিজ্ঞতা কেমন এটা তো আমরা সবাই জানি। আপত্তি করি না। যেহেতু এটা বড় ম্যাচ, এখানে নিয়মিত যারা করে তাদের আশা করছিলাম। আমরা ম্যাচ শুরুর আগেও কিছু বলিনি। এমনিতে নিজেরা আলাপ করেছি। সিসিডিএমের কাউকে বলিনি। নিজেরাই আলাপ করেছি। সেটা তার অনভিজ্ঞতার জন্যই।’

এদিকে এ প্রসঙ্গে বিসিবি পরিচালক ও বিসিবি আম্পায়ার্স কমিটি চেয়ারম্যান ইফতেখার রহমান মিঠু মনে করেন যা ঘটেছে তার থেকেও বাড়িয়ে প্রচার করা হয়েছে ঘটনাটি। তিনি বলেন, ‘ব্যাপারটা হলো এখানে যতটা সিচুয়েশন তার থেকে বড় করে দেখানো হয়েছে। যা হয়েছে মোহামেডান বলেন কিংবা প্রাইম ব্যাংক বলেন ওদের ম্যানেজাররা প্রথমে যখন জেসিকে দেখেছেন, যেহেতু এটা তার প্রথম ম্যাচ ছিল তাদের একটা প্রতিক্রিয়া ছিল যে, এইরকম একটা ম্যাচে কেন আমরা অনভিজ্ঞ আম্পায়ার দিয়েছি—এটা তাদের কথা। এখন বিষয়টা হচ্ছে জেসি কিন্তু অনভিজ্ঞ আম্পায়ার না। ও কিন্তু সেকেন্ড ডিভিশন, থার্ড ডিভিশন, প্রথম ডিভিশন, ইমার্জিং এশিয়া কাপ ও ভারতে সিনিয়র খেলোয়াড়দের ম্যাচ এবং অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে করেই কিন্তু তাকে আমরা দিয়েছি। তো এটা নিয়ে কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু বলেনি। সেদিন তাদের অভিযোগ ছিল যে, এই আম্পায়ার দিলাম কেন। এখন নিয়ম অনুসারে দল বললেই যে আম্পায়ার পরিবর্তন করা যাবে এটা কিন্তু সম্ভব নয়। এই ঘটনাটাকেই এখন বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন ভাবে বলা হচ্ছে।’

অন্য দিকে আম্পায়ার জেসির প্রসঙ্গে দেশ উত্তাল হলেও কিছুই জানেন না ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপান। গতকাল গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এ প্রসঙ্গে সভাপতি বলেন, ‘আমি আসলে এ ব্যাপারে কিছুই জানি না। আম্পায়ার্স কমিটির সঙ্গে কথা হলো, এ ব্যাপারে তারা তো আমাকে কিছুই জানায়নি। আমি সোশ্যাল মিডিয়ায় নাই, তাই এ ধরনের কোনো কিছুই আমি জানি না।’

আরো..