https://www.a1news24.com
১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৭:৪৮

‘দুর্নীতি বন্ধ না করে ইফতার মাহফিল বন্ধ ইসলামের বিরুদ্ধে দুরভিসন্ধি’

ইসলামী যুব আন্দোলন বাংলাদেশ-এর কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ নেছার উদ্দিন বলেছেন, সরকার নিত্যপণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়েছে। নিত্যপণ্যের সিন্ডিকেট ভাঙতে না পারলেও রোজাদার মানুষের সাথে উপহাস করছে। শিল্পমন্ত্রী বরই দিয়ে ইফতার করার কথা বললেও নিজে আঙুর আপেলসহ সবধরনের ফল দিয়ে ইফতার করেন। অন্যদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সাধারণ ছাত্রদের ইফতার মাহফিলে আসা নিরীহ রোজাদার ছাত্রদের রক্তাক্ত করে সরকার দলীয় ছাত্রলীগ ঈমানদার জনতার হৃদয়ে কুঠারাঘাত করেছে। অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার ও কঠোর শাস্তি না দিলে বদরের চেতনায় রমজানেও কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

আজ ১৪ মার্চ ৩ রমযান, বৃহস্পতিবার ইসলামী যুব আন্দোলন বাংলাদেশ-এর কেন্দ্রীয় শিল্প ও বাণিজ্য বিভাগের আয়োজনে রাজধানী ঢাকার একটি রেস্টুরেন্টে যুব ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ইঞ্জিনিয়ার এহতেশামুল হক পাঠানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় প্রচার ও দাওয়াহ সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, ইসলামী যুব আন্দোলনের সেক্রেটারি জেনারেল মুফতী মানসুর আহমাদ সাকী, ঢাকা মহানগর উত্তর সেক্রেটারি মাওলানা আরিফুল ইসলাম, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় শিল্প ও কল-কারখানা বিষয়ক সম্পাদক হাজী এমদাদুল ফেরদৌস, এসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি জেনারেল মুফতী রহমাতুল্লাহ বিন হাবিব, অর্থ সম্পাদক আলহাজ্ব শফিকুল ইসলাম, যুবকল্যাণ ও কর্ম সংস্থান সম্পাদক মাওলানা ইউনুছ তালুকদার, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মুফতি শেখ মুহাম্মাদ নুরুন্নাবী প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রহসনের নির্বাচনী বৈতরণী পার হয়ে সরকার বেসামাল হয়ে উঠছে। মিতব্যয়ীতার নামে ইফতার মাহফিল বন্ধ করে রোজাদারদের নিরুৎসাহিত করছেন। বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সাম্প্রদায়িক চর্চা হচ্ছে। ইফতার মাহফিলে নিষেধাজ্ঞা ইসলামের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র।তিনি বলেন, মন্ত্রী-এমপি ও সরকার দলীয় লোকজনের দুর্নীতি বন্ধ না করে ইফতার মাহফিল বন্ধ ইসলামের বিরুদ্ধে দুরভিসন্ধি।

আরো..