https://www.a1news24.com
২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১১:১৪

তাইওয়ানে ৭.৪ মাত্রার ভূমিকম্প, সুনামি সতর্কতা জারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: তাইওয়ানে শক্তিশালী ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। তাইওয়ানের পূর্ব উপকূলে আঘাত হানা এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৪। ভূমিকম্পের পর তাইওয়ান, ফিলিপাইন ও জাপানে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

বুধবার স্থানীয় সময় সকালের দিকে ঘটা এই ভূমিকম্পের কম্পন তাইওয়ানের পাশাপাশি অনুভূত হয়েছে চীন, ফিলিপাইন এবং জাপানেও। এক তাৎক্ষণিক বিবৃতিতে জাপানের আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, বিশাল মাত্রার এই ভূমিকম্পের জেরে সুনামির আশঙ্কা রয়েছে তাইওয়ান ও তার প্রতিবেশী এই তিন দেশে।

যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএস জানিয়েছে, ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল ছিল তাইওয়ানের হুয়ালিয়েন শহরের ১৮ কিলোমিটার দক্ষিণে। ভূপৃষ্ঠের ৩৪ দশমিক ৮ কিলোমিটার গভীরে এর উৎপত্তি হয়েছে।

এক জরুরি বার্তায় তাইওয়ান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভূমিকম্পের কারণে সুনামি আঘাত হানতে পারে। তাইওয়ানে এর প্রভাব পড়তে পারে। উপকূলীয় এলাকার লোকজনকে সতর্ক থাকতে বলা হচ্ছে।

অন্যদিকে জাপানের আবহাওয়া সংস্থা (জেএমএ) জানিয়েছে, বুধবার জাপানের স্থানীয় সময় সকাল ৯টার কিছু আগে তাইওয়ানের কাছে ৭ দশমিক ৪ মাত্রার একটি শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানে। এর ফলে তাইওয়ানের কাছে মিয়াকোজিমা দ্বীপসহ জাপানের কয়েকটি দ্বীপে শিগগিরই ১০ ফুট উচ্চতার সুনামি আঘাত হানতে পারে।

ভূমিকম্পে তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। তবে অনেক ভবন হেলে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ভূমিকম্পের পর লোকজন আতঙ্কিত হয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন।

ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ধসে পড়া আবাসিক ভবনের লোকজনকে বাড়ি ও স্কুল থেকে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। যারা বেরিয়ে আসছেন তাদের সবার চোখেমুখে আতঙ্কের ছাপ।

১৯৯৯ সালের সেপ্টেম্বরে তাইওয়ানে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছিল। ওই ভূমিকম্পে ২ হাজার ৪০০ মানুষের মৃত্যু হয়েছিল। এর ২৫ বছর পর শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানল দেশটিতে।

আরো..