https://www.a1news24.com
২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৭:৪৪

খালি পেটে দুধ চা পান ভালো না ক্ষতি, যা জানালেন পুষ্টিবিদ

অনলাইন ডেস্ক:চা পান করেন না, এমন মানুষ হয়তো খুঁজে পাওয়া যাবে না। সকালে ঘুম থেকে উঠে বা নাশতার পর, দুপুরে খাবারের পর, বিকেলে আড্ডায়, রাতে খাবারের পর কিংবা অফিসে কাজের ফাঁকে চা পান করা অভ্যাস হয়ে দাঁড়িয়েছে আমাদের। কিন্তু এর মধ্যে ভরা পেটে চা পানে সমস্যা না হলেও অনেকে খালি পেটে চা পান করে থাকি।

খালি পেটে দুধ চা পান করা উচিত নয়। এতে নানা রোগের ঝুঁকি থাকে বলে দাবি করেন অনেকে। কিন্তু বিষয়টি আসলে কতটুকু সত্য তা কি আমরা জানি। সম্প্রতি এ ব্যাপারে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন কলকাতা শহরের বিশিষ্ট পুষ্টিবিদ কোয়েল পাল চৌধুরী। এবার তাহলে তার ভাষ্যমতে খালি পেটে দুধ চা পান সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

চায়ের উপকারিতার শেষ নেই: চা হচ্ছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের উৎস। এ উপাদান শরীরে প্রদাহের প্রকোপ কমানোর কাজ করে থাকে। এ জন্য চা পানে ছোট ছোট বিভিন্ন রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। আবার চায়ে কিছু উপাদান থাকে, যা মস্তিষ্কে হ্যাপি হরমোন ক্ষরণে সহায়তা করে। এ জন্য চা পানের পর মেজাজ ফুরফুরে থাকে।

খালিপেটে দুধ চা কি পান করা উচিত: পুষ্টিবিদ কোয়েল পাল জানিয়েছেন, সুস্থ থাকার জন্য দুধ চা যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলাই ভালো। বিশেষ করে খালিপেটে দুধ চা পান করা ঠিক নয়। এতে গ্যাস, অ্যাসিডিটির মতো সমস্যা বেড়ে যায়। আবার কনিক গ্যাসট্রাইটিসের সমস্যাও হওয়ার ঝুঁকি থাকে। এ জন্য সুস্থ থাকতে খালিপেটে দুধ চা পানের অভ্যাস বাদ দেয়া উচিত।

লিকার চা পান করতে পারেন: দুধ চার তুলনায় লিকার চা স্বাস্থ্যকর। সকালে খালিপেটে লিকার চা পানে শারীরিক সমস্যা হওয়ার কোনো আশঙ্কা থাকে না। তবে লিকার চায়ে চিনি মেশানোর অভ্যাস বাদ দিতে হবে। তা না হলে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন না।

খাবার খাওয়ার কতক্ষণ পর দুধ চা: খাবার খাওয়ার অন্তত ৩০ মিনিট পর এক কাপ দুধ চা পান করতে পারেন। এতে গ্যাস, অ্যাসিডিটির সমস্যা হবে না। আর দুধ যদি ফ্যাটযুক্ত হয় তাহলে ফ্যাটলেস দুধ ব্যবহার করুন। এতে ওজন ও কোলেস্টেরল দুটোই নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

দিনে কত কাপ দুধ চা পান করবেন: লিকার চা দিনে ৩ থেকে ৪ কাপ পান করা যেতে পারে। তবে দুধ চা হলে দুই কাপের বেশি পান না করাই ভালো। এর বেশি হলে গ্যাস-অ্যাসিডিটির সমস্যা থেকে শুরু করে লিভার ও কিডনির মতো গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

আরো..