https://www.a1news24.com
২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৩:১৭

কাউনিয়ায় তিস্তার চরে গমের সোনালী সমারোহ

সারওয়ার আলম মুকুল, কাউনিয়া (রংপুর) প্রতিনিধি ঃ চলতি মৌসুমে কাউনিয়ায় তিস্তার চরাঞ্চলের চাষিরা তামাক চাষের পরিবর্তে গম চাষ করেছেন। তিস্তার চরে এ বছরের চিত্রটা পাল্টে গেছে। বিগত দিনের মতো চাষিরা ঝুঁকেছেন গম চাষে। কৃষি বিভাগের পরামর্শে তারা গম চাষ করে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশী জমিতে গম চাষ করেছেন।

সরেজমিনে তিস্তার চরাঞ্চলসহ বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে কৃষকের সাথে কথা বলে জানাগেছে, কম খরচে অধিক লাভ হওয়ায় গম চাষে আগ্রহ বাড়ছে তাদের। তিস্তার নদীর জেগে উঠা চরে গম চাষের সমারোহ, চর জুড়ে শোভা পাচ্ছে সবুজ আর সোনালী গমের শিষ। ইতোমধ্যে গম পাকতে শুরু করছে। অথচ কালের বিবর্তনের দিন দিন বিলুপ্তির পথে যেতে বসেছিল গম চাষ। একটা সময় ছিল যখন উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে ব্যাপক হারে গমের চাষ হতো। কিন্তু বর্তমানে কৃষক আলু চাষের দিকে বেশি ঝুকেছে। যার ফলে দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে গমের চাষ। কিন্তু চলতি বছরে কাউনিয়ায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশী জমিতে গমের চাষ হয়েছে। এবছর গমের বাম্পার ফলন হওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে। উপজেলা কৃষি বিভাগ জানায়, এবছর লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি পরিমাণ জমিতে গম চাষ হয়েছে। গমের বাম্পার ফলনের আশা কৃষকদের। অনুকূল আবহাওয়া ও আধুনিক প্রযুক্তিতে কৃষকদের আগ্রহ সৃষ্টি হওয়ায় স্বল্প খরচে যথা সময়ে কৃষকরা এবার গমের বাম্পার ফলন পাবে বলে মনে করছে কৃষি বিভাগ। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, গত বছর ২৩০ হেক্টর জমিতে গম চাষ হলেও এ বছর তা বেড়ে ২৬০ হেক্টর হয়েছে। চলতি মৌসুমে গম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে ৯২২মেট্রিক টন যা ২৫ শতকে ৩৬৫ কেজি। গোন্ডেনের ঘাট এলাকার গম চাষী আঃ জলিল, চারুভদ্র গ্রামের আঃ সোবহান, পাঞ্জরভাঙ্গা গ্রামের আনারুল সহ অনেকে জানান, গত বছর গমের ভাল ফলন ও দাম পাওয়ায় এবছর বেশি জমিতে গম চাষ করেছি। এছাড়া গম চাষে খরচ কম ফলন বেশি দামও ভাল পাওয়ায় আমরা লাভবান। কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা আমাদের গম চাষে উদ্বুদ্ধ করাসহ সঠিক সময়ে প্রণোদনা হিসেবে উন্নত জাতের বিনা মূল্যে গম বীজ ও সার প্রদান করায় আমরা উপুযুক্ত সময়ে গম চাষ করতে পেরেছি। প্রাকৃতিক কোন দূর্যোগ না হলে আমরা বাম্পার ফলনের আশা করছি। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ শাহানাজ পারভীন জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় গমের ফলন চলতি মৌসুমে অত্যান্ত ভাল হয়েছে। আমরা সঠিক সময়ে কৃষকদের মাঝে কৃষি প্রণোদনা হিসেবে উন্নত জাতের গম বীজ ও সার প্রদান করায় তারা সঠিক সময়ে গম চাষ করতে পেরেছেন। এ বছর কৃষক গত বছরের তুলনায় ৩০হেক্টর বেশি জমিতে গম চাষ করেছেন।

আরো..