https://www.a1news24.com
২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৪:৪৫

ইরানে পাল্টা হামলায় বাইডেনের অসম্মতি, জানালেন মার্কিন কর্মকর্তা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইসরায়েলকে সতর্ক করে হোয়াইট হাউস বলেছে, ইরানে কোনো পাল্টা হামলায় যুক্তরাষ্ট্র অংশ নেবে না। যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ প্রশাসনিক এক কর্মকর্তা এমন তথ্য জানিয়েছেন।

ইসরায়েলে গত শনিবার রাতভর ৩০০ এর বেশি ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে ইরান। গত ১ এপ্রিল সিরিয়ার দামেস্কে ইরানি কনস্যুলেটে হামলার জবাবেই এই হামলা চালানো হয়েছে বলেছে ইরান।

তবে ইসরায়েল বলেছে ইসরায়েলি, যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্র বাহিনী প্রায় সব অস্ত্রই লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানার আগেই ভূপাতিত করেছে।হোয়াইট হাউসের কর্মকর্তারা বলেছেন, সতর্কতার সঙ্গে প্রতিক্রিয়া জানানোর জন্য ইসরায়েলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

গতকাল রোববার জ্যেষ্ঠ এক প্রশাসনিক কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, সতর্কতার সঙ্গে কৌশলগত পরিকল্পনা করতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে পরামর্শ দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ইসরায়েলে প্রথমবারের মতো ইরানের সরাসরি হামলার পর বাইডেন এই পরামর্শ দেন।

ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, সিরিয়ায় ইরানি কনস্যুলেটে ইসরায়েলের হামলায় দেশটির জ্যেষ্ঠ সেনা কমান্ডাররা নিহত হয়েছেন। বাইডেন প্রশাসন মনে করে এর পাল্টা হামলা ইসরায়েল ভালোভাবেই সামাল দিতে পেরেছে।

ইসরায়েল বলেছে,ইরানের ছোড়া ৯৯ শতাংশ ক্ষেপণাস্ত্র, ড্রোন ও ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ভূপতিত করেছে তারা। মার্কিন কর্মকর্তারা ইরানের সেনাবাহিনীর তুলনায় এটিকে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর শ্রেষ্ঠত্বের নিদর্শন হিসেবে দেখছেন।

ইরানের হামলার পরপরই বাইডেন ও নেতানিয়াহুর মধ্যে ফোনে কথা হয়। ওই ফোনালাপে দুই নেতা ধীর গতিতে অগ্রসর হওয়ার কথা বলেন।

ইরানকে পাল্টা জবাব দেওয়া নিয়ে হোয়াইট হাউস সতর্ক করেছে কি না সে বিষয়ে ওই কর্মকর্তা বিস্তারিত কিছু জানাননি। তবে তিনি বলেছেন, এটি ইসরায়েলের হিসাবনিকাশের ওপর নির্ভর করবে।

যুক্তরাষ্ট্রের টিভি চ্যানেলে দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক মুখপাত্র জন কারবি বলেছেন, ‘বড় ধরনের সংঘাত যুক্তরাষ্ট্র এড়াতে চায়। ইসরায়েলকে এ বিষয়ে স্পষ্ট বার্তা দেওয়া হয়েছে।’ কূটনৈতিক মাধ্যমে ইরানকেও একই বার্তা দেওয়া হয়েছে বলেছেন জ্যেষ্ঠ ওই কর্মকর্তা।

কারবি ও হোয়াইট হাউসের ওই কর্মকর্তা দুজনেই বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে। তবে ইসরায়েল পাল্টা কোনো জবাব দিতে চাইলে তাতে অংশ নেবে না।

গত শনিবার রাতে ইসরায়েলের বিভিন্ন এলাকায় ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। দেশটির ভাষ্য, ১ এপ্রিল সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে ইরানি কনস্যুলেটে ইসরায়েলের বিমান হামলার জবাবে এ হামলা চালানো হয়েছে। ইসরায়েল লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানার আগে ইরানের বেশির ভাগ ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন ভূপাতিত করার কথা বলেছে।

এদিকে ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর চিফ অব স্টাফ মোহাম্মদ বাগেরি বলেছেন, ইসরায়েলে যেসব লক্ষ্যে হামলা চালানো হয়েছে, তার সব কটিই পূরণ হয়েছে। তিনি বলেন, ইসরায়েল যদি এ হামলার জবাব না দেয়, তাহলে দেশটিতে আর কোনো হামলার পরিকল্পনা নেই তেহরানের।

আরো..