https://www.a1news24.com
৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৮:০৩

আইপিএলে রান উৎসব ঠেকাতে বিসিসিআইকে যে পরামর্শ গাভাস্কারের

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ আইপিএল। মূলত ব্যাটারদের কথা মাথায় রেখে তৈরি করা হয় এই টুর্নামেন্টের উইকেটগুলো। সেখানে ব্যাটারাদের চার-ছক্কায় ছড়াছড়িতে আড়ালে থেকে যান বোলাররা। যা ক্রিকেটের সৌন্দর্য নষ্ট করছে বলে মনে করছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক এবং জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার সুনীল গাভাঙ্কার।

তাই আইপিএল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়া ভেন্যুগুলো বাউন্ডারির সীমানা বড় করার জন্য বিসিসিআইয়ের কাছে আহব্বান জানিয়েছেন তিনি। গেল পরশু অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে দিল্লির বিপক্ষে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৬৬ রান তোলেন হায়দ্রাবাদের ব্যাটাররা। সেই ম্যাচের পাওয়ার প্লেতে ১২৫ রান তুলে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বিশ্বরেকর্ড গড়ে হায়দরাবাদ। ম্যাচটিতে মাত্র ৩২ বল খেলে ৮৯ রান করেন হায়দরাবাদের অজি ওপেনার ট্র্যাভিস হেড। পাশাপাশি তাকে এই ম্যাচে যোগ্য সহায়তা করেন অভিষেক শর্মা। আর তাদের দুই জনের ব্যাটেই হয় এই বিশ্ব রেকর্ড।

তবে শুধু এই ম্যাচেই নয় আইপিএলের চলতি আসরে এখন পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় মোট ৩৭টি ম্যাচ। যার মধ্যে ১৬টি ম্যাচেই ২০০-এর বেশি রান হয়েছে। এছাড়াও ৫টি ম্যাচে হয়েছে ২৫০ রান। শুধু তাই নয়, এবারের আসরে ভেঙেছে আইপিএলের ইতিহাসে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডও। আইপিএলে ব্যাটারদের এমন সাফল্যে বোলাররা নিজেদের ওপর থেকে হারাচ্ছে আত্মবিশ্বাস। এমনটি মনে করছে গাভাস্কার।

তাই আইপিএলে বাউন্ডারি বড় করতে করতে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডে উদ্দেশ্য ভারতের সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, ‘আমি ক্রিকেট ব্যাটে কোনো পরিবর্তনের পরামর্শ দেব না কারণ এগুলো সবই নিয়মের মধ্যে আছে। কিন্তু আমি অনেক দিন ধরেই বলে আসছি, প্রতিটি মাঠে বাউন্ডারির আকার বাড়ানো কথা। আজ এই মাঠের দিকে তাকান, বাউন্ডারি লাইন আরো কয়েক মিটার পেছনে নেওয়ার জন্য যাওয়ার জন্য যথেষ্ট জায়গা ছিল। চাইলে বাউন্ডারি লাইনের পেছনে থাকা বিজ্ঞাপন বোর্ডগুলো আরও দুই-তিন মিটার পেছনে দেওয়া যেত। তাহলে ব্যাটার এবং বোলারদের মধ্যে ভারসাম্য তৈরি হবে। তা না হলে বোলাররা ক্ষতিগ্রস্ত হবে।’

আরো..